Free Handwriting

তারপর স্বর্গীয় দূত পূর্বে যে টাকাওয়ালা ছিল, তাহার কাছে গেলেন। সেখানে গিয়া আগের মতো একটি গাভি চাহিলেন।

নিচের রচনাংশটুকু চলিত রীতিতে রূপান্তর কর

https://i1.wp.com/i.imgur.com/TbGuxVw.jpeg?w=708&ssl=1

সাধু রূপঃ-

তারপর স্বীয় দূত পূর্বে যে টাকওয়ালা ছিল, তাহার কাছে গেলেন। সেখানে গিয়া আগের মতো একটি গাভি চাহিলেন। সেও ধবল রোগীর মতো তাহাকে কিছুই দিলনা । তখন স্বর্গীয়দূত  বলিলেন, আচ্ছা, যদি তুমি মিথ্যা বলিয়া থাক, তবে যেমন ছিলে আল্লাহ তোমাকেআবার তেমনি করিবেন।

তারপর স্বর্গীয়দূত পূর্বে যে অন্ধছিল, তাহার কাছে গিয়াবলিলেন, আমি এক বিদেশি । বিদেশে আমার সম্বল ফুরাইয়া গিয়াছে। এখন আল্লাহর দয়া ছাড়া আমার দেশে পৌছিবার আর কোনো উপায় নাই। যিনি তোমার চক্ষু ভালো করিয়া দিয়াছেন, আমি তোমাকে সেই আল্লাহর দোহাই দিয়া একটি ছাগল চাহিতেছি; যেন আমি সেই ছাগল-বেচা টাকা দিয়া দেশে ফিরিয়া যাইতে পারি ।

চলিত রূপঃ-

তারপর স্বর্গীয় দূত পূর্বে যে টাকাওয়ালা ছিল, তার কাছে গেলেন। সেখানে গিয়ে আগের মতো একটি গাভি চাইলেন।

সেও ধবল রোগীর মতো তাকে কিছুই দিল না। তখন স্বর্গীয় দূত বললেন, আচ্ছা, যদি তুমি মিথ্যা বলে থাক, তবে যেমন ছিলে আল্লাহ তোমাকে আবার তেমনি করবেন।

তারপর স্বর্গীয় দূত পূর্বে যে অন্ধ ছিল, তার কাছে গিয়ে বললেন, আমি এক বিদেশি। বিদেশে আমার সম্বল ফুরিয়ে গেছে।

এখন আল্লাহর দয়া ছাড়া আমার দেশে পৌঁছার আর কোন উপায় নাই। যিনি তোমার চক্ষু ভালো করে দিয়েছেন,

আমি তোমাকে সেই আল্লাহর দোহাই দিয়ে একটি ছাগল চাচ্ছি; যেন আমি সেই ছাগল-বেচা টাকা দিয়ে দেশে ফিরে যেতে পারি।

eassignment

eAssignmentBD is a resource center for teachers and students all around the world, especially in Bangladesh. We provide educational notes for students and teachers.
Back to top button